কবিতার ছবিটা

সে কোন আদিকাল থেকে লিখছেন তিনি কবিতা ক্যালেন্ডারের আঙ্কিক হিসেবে জানার আগেই সেই যে স্বর্গ হতে বিতাড়িত আদম মর্ত্যে এলো নেমে সেই থেকে লেখা হলো কবিতা, বিবি হাওয়ার মিলনে। প্রেমের সেই প্রথম উদ্ভব, অঙ্কুরে সেতো[…]

অভিন্নতার অন্বেষা

এক রুক্ষ বৃক্ষের বাকলে দেখি একরোখা বিশ্বকে আজ যার চার ভাগের তিন ভাগেই আছে মোহে মূহ্যমান জল বাকি এক ভাগে সত্য সন্ধানী মানুষ পণবন্দি উত্তপ্ত বালুতে হাহাকার চলে তৃষ্ণার্ত চিত্তের সত্যকে পাবার ব্যাকুল আকুলতায়। মেরুবর্তী[…]

সোনালি, কে তবে তুমি !

সোনালী তোমাকে পাই সর্বত্রই আজকাল মাঝে মাঝে হারাও মেঘের আড়ালে যদিও কষ্টের বিষ্টি তখন মূষল ধারে নামে আমার আঙ্গিনায় অথবা মুঠি মুঠি বালি ছড়ায়, প্রেমের প্রাঙ্গনে আমার। কী আশ্চর্য কোমল স্পর্শে মুগ্ধ করো ভালোবাসার বৃক্ষটিকে[…]

সংযমের সীমানা !

পাড়ার সেই পুরোনো দর্জি, মালেক মিয়া যিনি ক্রিকেটের মাঠে মাপা লেংথের বলের মতোই কেটে চলেন দৈর্ঘে প্রস্থে নানান রঙের পোশাক অবিরত ফরমায়েশি ফর্মেই থাকেন, ফ্যাশন কালোত্তীর্ণ করে। তাঁরই কাছে সেদিন হন্ত-দন্ত হয়ে এলো রমজান মিয়া[…]

বিয়ে ও বিচলিত এক বধূর স্বগতোক্তি

অনুভূতিরা নষ্ট হলেই কষ্ট পায় সে অবিরত বাসর রাতের স্বপ্নে যদি দোসর হয়ে যায় কিম্ভূত কোন ভূত কখনো, পেশী শক্তি যার পুষে রাখা , পিষে রাখার জন্য যথেষ্ট যদিও কিন্তু স্বপ্নদেরও পরাস্ত করে দুঃস্বপ্নের মল্লযুদ্ধ[…]

খণ্ড খণ্ড অখণ্ড অনুভূতি

মাঝে মাঝে দ্বিখণ্ডিত হয়ে যাই কিংবা হই এতটাই বহুধা বিভক্ত যে অখণ্ড এই আমি একেবারে স্তব্ধ পাথুরে অস্তিত্ব নিয়ে পড়ে থাকি পাহাড়ের কোন এক প্রান্তে পাশ দিয়েই কুলু কুলু রবে ব’য়ে যায় ঝর্না তবু তার[…]

প্রান্তিক প্রেমের পূর্ণ প্রত্যাশা

না চাঁদ নয় , চন্দ্রমল্লিকাও নয়, নয় কোন বিশেষ নক্ষত্রও যার সঙ্গে আটপৌরে কোন বাঁধনে বাঁধবো তোমায় নও তুমি গোলাপ, বকুল কিংবা বেলী ফুলের মালা সে সব উপমা বড় জোর কবিতার শব্দকে করে সমৃদ্ধ সাহিত্যিকেরা[…]

রবির অন্বেষায়,কবির কথা*

শতাব্দি পেরুলো সেতো কবেই তুমিতো শতায়ু পেরিয়ে বেঁচে থাকো সুরে ও শব্দে, জ্বল জ্বল করো নক্ষত্রের মতো দিক নির্দেশনা দিতে চাও, চিরচেনা তারার মতোই । হে নতুন দেখা দিক আরবার , বলে সেই চিরপুরাতন তুমি[…]

পাওয়া না-পাওয়ার সীমান্তরেখায়

বাগানে এখনও কাঠবিড়ালীদের অকারণ দৌড়ঝাঁপ আমিও ঝাঁপি খুলে বসে থাকি কখন আসবে তুমি আমার এই পসরা-রাখা মোড়ের মুদি দোকানে বোতল-ভরা ভালোবাসা থাকে থরে থরে সাজানো তুমি আসো না ‘ক আর হাওয়ায় ওড়ানো উড়িয়ে ওড়না আমার[…]

ধূসর মেঘের আড়ালে হারালে

কবিতার শব্দগুলো এখন পলাতকা চাঁদের মতো ধূসর মেঘের আড়ালে দিয়েছে গা ঢাকা বিষাদের স্বাদটুকু পেতে চায় না সে আর তাই স্বপ্নের চাদরে লুকোয় কলস ভরা কান্না। তোমার উষ্ণতাটুকু পেতে কাছে গিয়েছিলাম আমি দিলে কেবল বৈশাখি[…]