বৃক্ষের কথা

বিশাল এক বৃক্ষ রক্ষা করে
প্রতিনিয়তই আমাদের
তার ছায়াময় ছাতা নিজেই রাখে ধরে
আমার অনুর্বর মস্তিস্কের উপর।
পরদেশী প্রভাবে অক্ষরেরা আর
পারেনা তো পলাতক হতে কখনই
মস্তিস্ক থেকে হৃদয়ের গহীন অনুভবে
একেকজন হয়ে ওঠে কবিতা কেবল।

সেই যে বিশাল বৃক্ষ তাকে চিনতে পারি
সংখ্যা দিয়েই কেবল, খামে লেখা
বাড়ির ঠিকানার মতোই নিয়ে যায় সে
স্বদেশের সুবাসিত এক সবুজ আঙিনায় ।
জানি এ বৃক্ষ একদা চারা গাছ ছিল
কখনও বিদেশি কোন ঝড়ে নড়েছে
সে বার বার। কখনও ছিদ্রান্বেষী ছাগলেরা
দুমড়ে মুচড়ে নিঃশেষ করতে চেয়েছে তাকে।

কিন্তু না একচুলও নড়েনি সেই চারাগাছ
তাইতো আজ সে রূপান্তরিত মহীরুহে
আমরা কেবল গোড়ায় ঢেলেছি শহিদের রক্ত
বাহান্ন থেকে সব সংকটে সমন্বয়ে করেছি লালন।
দেবতার মন্দির কিংবা পীরের মাজার ভেবেই
বার বার গেছি তারই পাদদেশে ।
হঠাত্ হাওয়ায় শীতল করেছে অস্থির এ অস্তিত্ব
অতঃপর প্রবল প্রশান্তিতে হয়েছি নিদ্রামগ্ন।

সেই যে তোমার নামে ২১ নামের সংখ্যা
সেখানেই হে বৃক্ষ কেটে যায় সব শংকা ।

১৯শে ফেব্রুয়ারি ,২০২১ ম্যারিল্যান্ড
Copyright@anisahmed

Comments

Leave a Reply