যাত্রী

সেতো আজকের কথা নয় আদৌ
ফুলবাড়িয়া থেকে কমলাপুরে
স্টেশন এসেছিল যখন সেই শৈশবে আমার
বড্ড ইচ্ছে ছিল চড়বো উল্কায়
কিংবা সে দিনের সেই গ্রীন অ্যারোতে
ছুটবো তীরের বেগে অজানা কোন গন্তব্যের দিকে
ছিল আগ্রহ অপরিসীম, ছিল না জানা গন্তব্য আদৌ
পথ-চলার আনন্দেই চাইতাম দ্রুতযানে যাত্রা ।
ঠিক ঐ গতিতেই কবে বড় হবো
ভেবে ইচ্ছের পাখিটা উড়তো মনের মুক্ত আকাশে।

এখনতো আর হায় ওড়াইনা আকাশে কোন ইচ্ছে-ঘুড়িও
দ্রুতযানে ভ্রমণে কেন জানি ভয় পাই অহরহ
না, না কোন দূর্ঘটনায় পড়বে আমার ট্রেন কখনও
তেমন ভয়ে সন্ত্রস্ত নই আদৌ,তবু এখন শুধু চাই
বাহন আমার চলুক ধীরে,বাজুক তবলা ধীর বোলে
থামে যেমন লোকাল ট্রেন, তেমনি থামুক নানান স্টেশনে
কচি ডাবের পানি, খোসা ছাড়ানো শশা গুটিকয়েক
নেবো কিনে, সাথে কাঁঠালের কোয়া অথবা আমসত্বের স্বাদ
এগুলোই হবে এই যাত্রাকালে সঙ্গী আমার
কামরার কোন সহযাত্রীর সঙ্গে খোশগল্পে সকাল গড়াবে সন্ধ্যায়।

গন্তব্য তো নয় গোপন আদৌ,ধীর গতিতে চলুক না বাহন
চলিষ্ণু সময় ক্ষয়িষ্ণু হতে হতে শুনি না হয় আরও সপ্তকাহন।
স্বর্গ অথবা নরকে জানিনে কোথায় থামবে গাড়িটি আমার
ঈশ্বর নামাবেন পতাকা যেদিন, জানি সময় হবে সেদিনই নামার।
সঙ্গে থাকবে কি সম্পদ কিছু ? নাকি কেবলই কতক নিরর্থক বোঝা
পাপ ও পূণ্য যাই-ই থাকুক, অবশেষে হবে শেষ ঈশ্বর খোঁজা।
বলবো সেদিন আলখাল্লা পরা মোল্লারা সব মিছেই দেখালো ভয়
পিতাই বলো, প্রেমিকই বলো প্রাপ্তিতে তাঁর অবিমিশ্র এক জয়।
হয়ত সেদিন বলবো আমি,কেন হলো না বাহন দ্রুতগামী
অদৃষ্ট থাকে দৃষ্টির বাইরে, জানেন শুধু অন্তর্যামী

২রা জুলাই ২০২০ , ম্যারিল্যান্ড
Copyright@anisahmed

Comments

Leave a Reply