মা: দিবসে বিবশ যখন

স্বপ্নের ঘোর কাটতেই মনে হলো
নিমেষেই চলে গেল সেদিনকার মা দিবস
মা কে নিয়ে হলো না লেখা বিন্দু বিসর্গও
স্বর্গবাসিনী মা’র প্রতি এই অবজ্ঞা আমার
জানি ক্ষমা করবেন না,মা কিংবা প্রভু কেউই হয়ত
ঠেলে দেবেন স্বর্গ থেকে দূরে, হয়ত রৌরব নরকে
বলবেন , “ থাক তুই না হয় এখানেই পড়ে
মা দিবসেও ভুলে ছিলি মা কে ,এখনও যা সরে।

লক-ডাউনের এই মৌসুমে ভার্চুয়াল ভূমিতে নেমে
কার্ড এবং কেকের ছবিতে সয়লাব যখন
সামাজিক মাধ্যমের বৈদ্যূতিন পাতাগুলো
তখনও হতভাগা তোর মনে কি পড়েনি মা ‘র কথা ?
লিখতে কী পারিসনি দুটি লাইন সেদিন শুধু
কিংবা মা ‘য়ের ছবি দিয়ে ভালোবাসা জানাসনি কেন হে পাষন্ড ?
–ঈশ্বরের এ জিজ্ঞাসার কীবা জবাব দেবো আমি
বাকরুদ্ধ এ সত্বায়, অশ্রুসজল চোখে অসহায় আমি।

আচমকা মনে পড়লো কখনও কোন দিনওতো
কেকেতে কার্ডেতে শ্রদ্ধা জানাইনি মাকে আমি
কখনই কোন দিবসের গন্ডিতে বন্ধ হননি তিনি
তিন শ’ পঁয়ষট্টি দিনই ছিল মা দিবস আমার
শ্রদ্ধায় ভালোবাসায় একাত্ম ছিলাম প্রতিদিনই
শাসনের স্নেহে কেটেছিল তো বহু দিন মা’র কাছে ।
আগেওতো কখনই মা কে নিয়ে কাটিনি কোন কেক
ভালোাসাকে করিনি আমি, তিনিও করেননি ফেক।

স্বর্গবাসিনি মা আমার , স্বপ্নে এলেন মর্ত্যে নেমে
অকষ্মাৎ আমার দুঃস্বপ্নরা পলাতক, গেল দুঃখ থেমে
আরও একবার জড়ালেন আমায় স্নেহে তাঁরই বুকে
সুবাস পেলাম তাঁরই সত্বার , বিমূর্ত এক সুখে ।
বানিজ্যের বেসাতিতে আজ দিবসে বিবশ হন মায়েরা সব
অনুচ্চারিত স্নেহরা পরাস্ত হয়, চারিদিকে কর্পোরেট কলরব ।

১৩ই মে ২০২০ , ম্যারিল্যান্ড
Copyright@anisahmed.

Comments

Leave a Reply