বৌদ্ধিক বিষন্নতা

বিষাদ ও বুদ্ধির এমন ব্যতিক্রমী আস্বাদ
পেয়ে যাই যখন অকস্মাৎ কোন পূণ্যের ফসলে
অঙ্ক মেলাতে পারিনা সহজে, শুভঙ্করের চক্রজালে
বুদ্ধিকে বিষন্নতার বাটখারা দিয়ে মাপতে চাই
অথবা বিষন্নতাকে বুদ্ধির পরিমাপে দেখার প্রচেষ্টা
কোনটাই বুঝিনা , যতক্ষণ না দেখি ওই চোখের মণি
যেখানে বুদ্ধি ও বিষাদ ঘর বেঁধেছে একই সাথে ।

কখনও দেখি মেঘের আড়ালে হারায় প্রদীপ্ত দীপালিকা
কখনও দেখি মেঘ হয় পরাস্ত , প্রদীপ জ্বলে আপন প্রভায়
সাঁতার জানিনে বলে, তীরে দাঁড়িয়ে দেখি দীঘি দীঘল চোখ
ডুবে যাবার ভয়ে , হৃদয়টুকু রেখে দিই সযত্নে আড়ালে একেবারে
বড়জোর ভেজা বালির স্পর্শে মন পায় সাগর-সান্নিধ্য ।
কখনও কখনও জোয়ার জল চলে আসে বালিয়াড়িতে রাখা
হৃদয়ের কাছাকাছি , আবার কখনও ভাঁটার টানে চলে যায় বহুদূর।

প্লেটোর প্লেটে রাখা প্রেমের প্রসাদ রাখি আফ্রোদিতির কাছাকাছি
পাছে সেই প্রেমের প্রতিমা জেগে বলে তুমি আছো, আমি আছি।

৬ই ফেব্রুয়ারি ২০২০, ম্যারিল্যান্ড
Copyright@anisahmed.

Comments

Leave a Reply