উচাটন উচ্ছাস

বৈকালিক চায়ের কাপে চুমুক দিয়েই
মনে হলো তোমার ঊষ্ণ ঠোঁটই বুঝি এটা
যাকে স্পর্শ করার সেই আদি ও অকৃত্রিম
আনন্দটা নন্দন কানন থেকেই নান্দনিক হয়ে আছে।

ঝুল বারান্দার কার্নিশে বসা হলদে পাখিটা দেখে
ভাবি এ বুঝি তোমারই বাসন্তিকা হৃদয়ের ছবি
যাকে ভালোবাসার চোখে অনুভব করলেই
বোঝো তুমি, বুঝি আমিও আমরা থাকি পরস্পরের কাছে।

নায়াগ্রা নদীর অমন শান্ত গতি দেখে
মনে হলো এ বুঝি তোমার মুগ্ধতার এক স্নিগ্ধ রূপ
পরমূহুর্তেই দেখি উচ্ছসিত তুমি জলপ্রপ্রাতে প্রেমে
মিশে গেছো তুমি প্রকৃতির সেই নির্মল আনন্দে।

সুরের মূর্চ্ছনায় শুনি তোমারই গাওয়া সেই গান
যার অন্তরাটুকু অন্তরে আনে অনুভবের অনুরণন
খুঁজে বেড়াই তোমাকে শহুরে শব্দের ভেতরে
অতঃপর অকস্মাৎ তুমি আবির্ভূত আমারই কবিতার ছন্দে।

এত কোলাহল যানবাহনের শব্দ, চিনে ফেলি তবু ঐ কন্ঠস্বর
যেখানে আছে পেলব প্রেম , আছে সবটুকু আদুরে সেই অন্তর।

Copyright@ Anis Ahmed
June 9, 2019, Maryland

Comments

Leave a Reply